২৭ কোটির ড্রাগ সমেত মনিপুর বিজেপির নেতা গ্রপ্তার

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

২৭ কোটি টাকার ড্রাগ সমেত ধরা পড়লেন মনিপুরের বিজেপি নেতা। এই নেতা গতবছর জাতীয় কংগ্রেস থেকে নির্বাচিত হলেও পরে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেন । গত 20 তারিখ বুধবার সাতজনকে The Narcotics and Affairs of Border (NAB) 27 কোটি টাকার ড্রাগ সমেত  গ্রেপ্তার করে যার মধ্যে বিজেপি নেতা এবং  স্বয়ংক্রিয় চান্দেল জেলা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান লুতখোসেই ঝউ ছিলেন অন্যতম। ন্যাব এই হানায় ৪.৫৯৫ কেজি  হেরোইন, 28 কেজি WY ট্যাবলেট এবং 95 হাজার টাকার বাতিল নোট উদ্ধার হয় ।এছাড়াও পাওয়া গেছে  0.32 NPB  পিস্তল, 21 রাউন্ড গুলি, একটি SBBL রাইফে্‌ল, দুটি বন্দুকের লাইসেন্স বই এবং 8টি ব্যাংকের পাস বই। তবে ঘটনার পরই  ঝউ কে পার্টি থেকে বরখাস্ত করা হয়।  তথ্যসূত্র 

 

 

দিন দশেক আগেই গোয়াতে আরেকটি ঘটনায়  The Revenue Intelligence Department উত্তর গোয়ার বিজেপির সম্পাদক বাসুদেব পরবের কোম্পানি বিজয় ইন্ডাস্ট্রিস  থেকে বাজেয়াপ্ত করে ১০০ কেজি কেটামাইন ড্রাগ যার মূল্য প্রায় ৪ কোটি টাকা। তথ্যসূত্র

এরো আগে ২০১৭ র এপ্রিল মাসে পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর জেলার শাহাবাদ থেকে বিজেপি মন্ডল প্রধান হরিন্দর সিং এর বাড়ি থেকে দুজন ড্রাগ পাচারকারী কে গ্রেফতার করা হয়, একই সাথে গ্রেপ্তার হন প্রধানের পুত্র  হাসানদীপ সিং।  এই ঘটনায় পুলিশ ৮৭ গ্রাম হেরোইন, ১২ বোরের জার্মান পিস্ত্‌ল, একটি রাইফেল ,পাঁচটা কার্টিজ ও একটি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে ।  তথ্যসূত্র

 

 

 

স্থানীয় সংবাদ পত্রে ঝউ এর গ্রেপ্তারের খবর

 

উদ্ধার করা পুরানো নোট ও ড্রাগের প্যাকেট

ড্রাগ পাচারের বারবার বিজেপি নেতা দের নাম উঠে আসায় কার্যতই এখন অস্বস্তিতে বিজেপি। তার উপর আবার রাজস্থানের বিজেপি এমএলএ অর্জুন লাল গরগ তো এক মঞ্চে মুখ ফসকে বলেই ফেলেছিলেন ” ড্রাগ পাচার করবেন না কারণ ওটা জামিন অযোগ্য অপরাধ বরং আপনারা সোনা পাচার করুন যাতে সহজেই বেল পেতে পারেন।”  নীচে দেখুন সেই ভিডিওঃ 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *