স্টোনম্যান মিথ আজো কোলকাতার পথচারীদের আতঙ্ক! (Stone Man)

শহরের আলো ঝলমলে পথঘাট দেখে যারা নিজেদের সুরক্ষিত অনুভব করেন এই ঘটনা জানলে তারা শিউরে উঠবেন, কারণ এই ঘটনা একটি সুবিশাল শহরের! একটু বয়স্করা মনে করতে পারবেন কিন্তু নতুনদের কাছে এই ঘটনা একেবারেই অজানা। প্রায় প্রতি ভোরেই শহরের রাস্তায় পাওয়া যাচ্ছিল মৃতদেহ, মাথায় আঘাতের চিহ্ন, পাশে পড়ে থাকত বড় ভারি পাথর। শহরের নাম – কলকাতা! হ্যাঁ খদ কলকাতা শহরেই ১৩ টি হত্যার পিছনে ছিল এক অজ্ঞাত পরিচয় আততায়ী। সালটা ১৯৮৯, রাতের কলকাতার সুনসান পথে গরিবগুরবো গৃহহীন ঘুমন্ত মানুষ দেখলেই কেউ একজন মাথায় বড় পাথরের বাড়ি মেরে হত্যা করত তাদের। মাত্র ৬ মাসের ভেতরেই সে তার হত্যাযজ্ঞ চালায়। তবে এই ঘটনার শুরু কলকাতায় নয়, ১৯৮৫ সালে প্রথম মুম্বাই শহরের বুকে ঘটে যায় একই রকমের ১২ টি মার্ডার, ধরনটা একই, প্রতি ঘটনারই শিকার গভীর রাত্রে ফুতপাতে শুয়ে থাকা মানুষ। মুম্বাই পুলিশের তদন্ত থেকে জানা যায় ৩০ কেজির পাথরের এক আঘাতেই হত্যাগুলি করা হয়। তবে কলকাতা পুলিশ কোন ভাবেই বলতে পারেনি এই খুনের ঘটনাগুলি আততায়ী একাই ঘটিয়েছে নাকি দল বেঁধে? স্টোন ম্যানের ঘটনা তৎকালীন সময়ে সারা দেশে শরগল ফেলে দিয়েছিল। হিন্দিতে “দ্যা স্টোন ম্যান মার্ডারস” নামক একটি গোটা সিনেমাই হয় এই রহস্যময় সিরিয়াল মার্ডার গুলিকে কেন্দ্র করে, এছাড়াও বাংলা চলচ্চিত্র “বাইশে শ্রাবণ”-ও এই ঘটনার ছায়া অবলম্বনে তৈরি হয়। স্টোন ম্যানের অসমাধিত রহস্য ভারতীয় আরক্ষাবাহিনীর ব্যর্থতার দিকেও আঙ্গুল তোলে…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *